তাজা খবর:

আপিল বিভাগে তিন বিচারপতি নিয়োগ দুর্নীতির অভিযোগে আটক রাশিয়ার উপ-প্রতিরক্ষামন্ত্রী চেলসিকে ৫-০ গোলে উড়িয়ে দিল আর্সেনাল লস এ্যাঞ্জেলেস এফসিতে যোগ দিচ্ছেন ফরাসি তারকা গিরুদ আগামীতে বাংলাদেশের হজ ব্যবস্থাপনা হবে বিশ্বের মধ্যে অন্যতম স্মার্ট : ধর্মমন্ত্রী উত্তর কোরীয় প্রতিনিধি দলের ইরান সফর থাইল্যান্ডে প্রধানমন্ত্রীকে লাল গালিচা সংবর্ধনা Wednesday, 24 April, 2024, at 5:53 PM

ENGLISH

শিক্ষাঙ্গন

চবি’র নারী শিক্ষার্থীও রেহাই পায়নি স্থানীয়দের হামলা থেকে

নিজস্ব প্রতিবেদক :

প্রকাশ : 17 মার্চ 2024, রবিবার, সময় : 12:46, পঠিত 735 বার

গত ১২ মার্চ (মঙ্গলবার) চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ২ নং গেট সংলগ্ন এলাকায় বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্রের সঙ্গে বাগবিতণ্ডা হয় স্থানীয় এক ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতির যার থেকে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে হাটহাজারীর থানাধীন জোবড়া গ্রামের এলাকাবাসী ও বিশ্ববিদ্যালয়টির শাখা ছাত্রলীগের একাংশ। এ সংঘর্ষে উভয় পক্ষের একাধিক আহত হয়। ঘটনার ধারাবাহিকতায় স্থানীয় এলাকাবাসী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনের নিকট এই সংঘর্ষে জড়িত শিক্ষার্থীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করার আরজি দেয় এবং একই সাথে ঐ শিক্ষার্থীদের বিরুদ্ধে হাটহাজারী থানায় মামলা করার উদ্যোগ গ্রহণ করলেও থানায় মামলা রুজু করেনি বলে অভিযোগ করেছে স্থানীয়রা। 


এরই পরিপ্রেক্ষিতে ১৫ মার্চ (শুক্রবার) পূর্ব ঘটনার জের ধরে স্থানীয় এলাকাবাসী বিশ্ববিদ্যালয়ের ১ নং গেট ও গেট সংলগ্ন মহাসড়কে আগুন জ্বালিয়ে অবরোধ করে এবং বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রবেশের মূল সংযোগ সড়কের রেলক্রসিং এলাকায় বিক্ষোভ করতে থাকে। এই বিক্ষোভের মধ্যে দুপুরে রেলক্রসিং এলাকায় বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসীর হাতে নির্মমভাবে হামলার শিকার হন পূর্বক্ত ঘটনার সাথে সম্পৃক্তহীন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের মেধাবী শিক্ষার্থী ১৮-১৯ সেশনের মাঈশা, তন্ময়, শাহাদাত, শুভ ও ২০-২১ সেশনের উমর। পরবর্তীতে আহতদের উদ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হয়।




মারধরের শিকার লোকপ্রশাসন বিভাগের ১৮-১৯ সেশনের ছাত্রী মায়েশা গণকণ্ঠ’কে বলেন, আমরা দুপুরে জিরো পয়েন্ট থেকে ঢাকা যাওয়ার উদ্দেশ্যে রওনা দিয়েছিলাম, রেলগেট এসে দেখি ঐ খানে বিক্ষোভ মিছিল হচ্ছে, সেখানে আমাদের গাড়ি আটকিয়ে ভার্সিটির স্টুডেন্ট বলেই স্থানীয়রা জ্বলন্ত কাঠের গুড়ি দিয়ে অতর্কিতভাবে এলোপাথারি আমাদের উপর আঘাত করে। তারা আমার মাথায় ও পিঠে আঘাত করেছে এবং আগুনে আমার হাত পুড়ে গিয়েছে। 


মারধরের শিকার ১৮-১৯ সেশনের ছাত্র মো: শাহাদাত হোসেন গণকণ্ঠ’কে বলেন, স্থানীয়রা আমাদের ভার্সিটির স্টুডেন্ট বলেই মারা শুরু করেছে। আমার মাথায় ছয়টা সেলাই দিতে হয়েছে। আমরা প্রক্টরের কাছে সব জানিয়েছি, তারা বলেছে যে ব্যবস্থা নিবে কিন্তু এখনো কোনো ব্যবস্থা নেয়নি। 


মারধরের শিকার আইন বিভাগের ২০-২১ সেশনের ছাত্র উমর গণকন্ঠ’কে বলেন, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী বলেই আমাদের উপর স্থানীয়রা হামলা করেছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী হিসেবে বাংলাদেশের প্রথম শ্রেণীর নাগরিক হিসেবে এমন বিরূপ ব্যবহার আমরা আশা করতে পারিনা। বাবা-মা ছেড়ে এত দূর থেকে আমরা এখানে এসেছি পড়াশোনা করতে, এই এলাকার মানুষজনই তো  আমাদের পরিচিত ভাই-বোন প্রতিবেশী, তারাই যদি আমাদের উপর এমন হঠাৎ করে এত হিংস্রাত্মক আক্রমণ করে তাহলে তো আসলে পড়তে এসে আমাদের মরার উপক্রম হলো। 


ঐ দিন দুপুরেই শিক্ষার্থীদের উপর এই নৃশংস হামলার প্রতিবাদে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল ফটকে তালা ঝুলিয়ে বিক্ষোভ করে বিশ্ববিদ্যালয়টির শিক্ষার্থীরা। এসময়ে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের দাবি যে পূর্বের ঘটনার জের ধরেই নাকি ১৫ মার্চ মাইকিং করে লোক জড়ো করে পরিকল্পিতভাবেই স্থানীয় এলাকাবাসী শিক্ষার্থীদের উপর হামলা করেছে। 


এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়টির প্রক্টর ড. নূরুল আজিম শিকদার গণমাধ্যমকে জানান, যারা এ ধরণের ন্যাক্কারজনক ঘটনা ঘটিয়েছে তাদের বিরুদ্ধে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন বাদী হয়ে মামলা করবে।


প্রসঙ্গত, জোবড়ার বাসিন্দাদের দ্বারা চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের উপর হামলার ঘটনা নতুন কিছু নয়। ইতিপূর্বে ১৯ আগস্ট ২০২৩, ১৪ এপ্রিল ২০২২, ২৮ অক্টোবর ২০১৮ সহ আরও বিভিন্ন সময়ে স্থানীয়দের দ্বারা শারীরিক আক্রমণের শিকার হয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়টির শিক্ষার্থীরা। এছাড়াও বিভিন্ন সময় নিজেদের শক্তি জাহির করতে এলাকাবাসীরা শিক্ষার্থীদের স্থানীয় ভাষায় গালিগালাজ করতো বলেও জানা গেছে।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।




শিক্ষাঙ্গন পাতার আরও খবর

  • সর্বশেষ সংবাদ

    সর্বাধিক পঠিত

    সম্পাদক ও প্রকাশক: মোহাম্মদ নিজাম উদ্দিন জিটু

    সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : প্ল্যানার্স টাওয়ার, ১০তলা, ১৩/এ বীর উত্তম সি আর দত্ত রোড, বাংলামটর, শাহবাগ, ঢাকা-১০০০, বাংলাদেশ।
    ফোন: +৮৮-০২-৪১০৬৪১১১, ৪১০৬৪১১২, ৪১০৬৪১১৩, ৪১০৬৪১১৪, ফ্যাক্স: +৮৮-০২-৯৬১১৬০৪, হটলাইন : +৮৮-০১৯২৬৬৬৭০০১-৩
    ই-মেইল : [email protected], [email protected] , Web : http://www.banglakhabor24.com